পাকিস্তানে শেষ হল দুই দিনব্যাপী ইন্টারন্যাশনাল মাউন্টেন ফিল্ম ফেস্টিভাল

পাকিস্তানে শেষ হল দুই দিনব্যাপী ইন্টারন্যাশনাল মাউন্টেন ফিল্ম ফেস্টিভাল

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন
পাকিস্তানের সর্বোচ্চ পাঁচটি পর্বতশৃঙ্গে নতুন রাস্তা আবিস্কারকারী একজন পোলিশ পর্বতারোহীকে নিয়ে নির্মিত তথ্যচিত্র দুই দিনব্যাপী ইন্টারন্যাশনাল মাউন্টেন ফিল্ম ফেস্টিভালে জয়ী হয়ছে।তথ্য মন্ত্রণালয় এবং আইবেক্স ফিল্মস এর সহযোগিতায় পাকিস্তান ন্যাশনাল কাউন্সিল অফ আর্টস (পিএনসিএ) গত সোম-মঙ্গলবারে লাহোরে এই উৎসবের আয়োজন করে।
 
পিএনসিএ মহাপরিচালক জামাল শাহ এবং চলচ্চিত্র তারকা ফয়সাল রেহমান সহ অভিজ্ঞ শিল্পীদের সমন্বয়ে গঠিত জুরিবোর্ড এখানে অংশ নেয়। পাঁচটি ক্যাটাগরিতে সেরা চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করা হয়।শীর্ষ পুরস্কার পায় পোলিশ পর্বতারোহী জারজি কুকুচকাকে নিয়ে নির্মিত “জুরেক”। সংস্কৃতি ও পরিবেশ সংক্রান্ত শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের পুরস্কার পায় “তাশি অ্যান্ড দ্যা মঙ্ক” যা তিব্বতের বুদ্ধ সম্প্রদায়ে এক মানসিকভাবে আঘাতগ্রস্ত এক মেয়ে গ্রহণযোগ্যতা সম্পর্কে বানানো হয়েছে।
 
বক্সার হোসেন শাহ কে পাকিস্তানের অলিম্পিক স্বর্ণ জয়ী মুষ্টিযোদ্ধাকে নিয়ে তৈরি পাকিস্তানি চলচ্চিত্র শ্রেষ্ঠ ফিকশনের পুরস্কার জিতে। ইয়োসেমাইট উপত্যকার পর্বতারোহী সম্পর্কে নির্মিত আমেরিকান ডকুমেন্টারি “ভ্যালি আপরাইজিং” দর্শকদের পুরস্কার। “প্যনগলিনস ইন পেরিল” বিশ্বের সবচেয়ে শিকারক্রিত প্রাণীর উপর তথ্যচিত্র জিতেছে সেরা পাকিস্তানি তথ্যচিত্র পুরস্কার।
 
পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল পর্বতমালা ফিল্ম ফেস্টিভাল (পিআইএমএমএফ) এর চেয়ারম্যান ওয়াজাহাত মালিক ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা মরিয়ম চিমা পর্বতের জন্য আওয়াজ তোলার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। পরবর্তীতে পিএনসিএ এবং পিআইএমএমএফ এর মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত এই ফিল্ম ফেস্টিভালকে ভবিষ্যতে স্থায়ী করতে।
 
জামাল শাহ এই উৎসব দলের প্রশংসা করেন এবং আগামী বছর ইসলামাবাদের আরও একটি ফিল্ম উত্সব অনুষ্ঠানের এর ঘোষণা করেন। তিনি আরো বলেন যে রাজধানীতে একটি ফিল্ম অ্যাকাডেমি শুরু করার প্রচেষ্টা হচ্ছে। জাতীয় পারফর্মিং আর্টস গ্রুপের কলস নাচ দ্বারা উৎসবটি শেষ হয়।
শেয়ার করুন