গুর্খা উত্তেজনা নিরসনে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের ত্রিপক্ষীয় উদ্যোগ

গুর্খা উত্তেজনা নিরসনে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের ত্রিপক্ষীয় উদ্যোগ

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন

পশ্চিম বঙ্গের পাহাড়ি জেলা দার্জিলিংয়ের সহিংসতা অবসানে ১৯ জুন পশ্চিমবঙ্গ, গুর্খা জনমুক্তি মোর্চাকে নিয়ে ত্রিপক্ষীয় আলোচনার আহ্বান জানিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

মোর্চা অবশ্য বৃহস্পতিবার ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে জানিয়েছে, তারা একটি মাত্র শর্তে আলোচনায় অংশ নিতে পারে। সেটা হলো যদি আলাদা গুর্খা রাজ্যের দাবিটির সুরাহা করা হয়।

পশ্চিমবঙ্গ সরকার ওই এলাকার স্কুলগুলোতে বাংলাকে বাধ্যতামূলক করার যে উদ্যোগ নিয়েছে তা বাতিল করে জেলাটিতে শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য কেন্দ্রের হস্তক্ষেপও দাবি করেছে মোর্চা।

অন্য দিকে এ ধরনের আলোচনা স্থগিত করার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার কেন্দ্রের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে।

রাজনাথের সাথে মোর্চার সাধারণ সম্পাদক রোশান গিরি সাক্ষাত করে তাদের শর্তের কথা জানিয়েছেন।

গিরি জানান, গুর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন-সংক্রান্ত আলোচনায় অংশ নিতে ১৯ জুন তারা ত্রিপক্ষীয় সভায় যোগ দেবে না। তারা কেবল পৃথক রাজ্য নিয়েই আলোচনা করতে চায়।

তিনি বলেন, রাজ্য সরকার শক্তি প্রয়োগ করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনটি চাপা দিতে চায়।

তিনি বলেন, দার্জিলিংয়ে বাঙালি ও নেপালি ভাষা চলে। উভয় ভাষার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা উচিত। আমরা দার্জিলিংয়ে বাংলা চাপিয়ে দেওয়া মেনে নেব না।
তিনি রাজনাথ সিংকে আশ্বস্ত করেন, এ ব্যাপারে সমাধান বের করার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে বৈঠকে রাজি।

print
SOURCEহিন্দু
শেয়ার করুন