নির্বাচনকে “নাটক” বলে অভিহিত করেছে আরজেপি-এন

নির্বাচনকে “নাটক” বলে অভিহিত করেছে আরজেপি-এন

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন

রাষ্ট্রীয় জনতা পার্টির (আরজেপি-এন) চেয়ারম্যান ২8 জুন অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া স্থানীয় পর্যায়ে দ্বিতীয় দফার নির্বাচনকে নাটক বলে অভিহিত করেছেন । ২8 জুন স্থানীয় নির্বাচনের বিরোধিতাকারী আরজেপি-এন অনেকদিন ধরে তরাই অঞ্চলে বিক্ষোভ করে আসছে। রোববার ভৈরবায় আয়োজিত একটি সংবাদ সম্মেলনে আরজেপি-এন চেয়ারম্যান মহান্তা ঠাকুর এবং রাজেন্দ্র মাহাতো দাবি করেন যে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ ব্যতীত নির্বাচনের কোন মানে হয় না।

মহান্তা ঠাকুর বলেন “মাধেশের সমস্যাগুলির সমাধান করার পরই শুধু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে। কিন্তু এর মধ্যে সরকার একতরফা নির্বাচনের ঘোষণা দিয়ে আমাদের পারষ্পরিক বোঝাপড়ার জায়গাটি নষ্ট করেছে। এখন আমাদের সামনে দুটো বিকল্প আছে: হয় প্রতিবাদ অথবা আত্মসমর্পণ করা। আমরা প্রতিবাদের পথ অনুসরণ করব এবং আমরা এই বিষয়ে সরকারকে জানিয়ে দিয়েছি । ”

রাজেন্দ্র মাহাতো বলেছেন, তাদের প্রতিবাদ সত্ত্বেও তাদের দলের শত শত ক্যাডারের গ্রেফতারের পরে কোন গণতান্ত্রিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে না।

আরজেপিএন নেতাদের হত্যার ষড়যন্ত্র

আরজেপি-এন চেয়ারম্যান দাবি করেছেন যে সরকার তাদের হত্যা করার অভিপ্রায়ে নিরাপত্তা বাহিনীকে বুলেট এবং টিয়ারগ্যাস শেল ব্যবহার করার নির্দেশ দিয়েছে। ঠাকুর বলেন “অপ্রয়োজনীয়ভাবে বিতর্ক তৈরির জন্য সমাবেশে বাধা দেয়ার উদ্দেশ্যে একটি ষড়যন্ত্রমূলক পদ্ধতিতে গুলি চালানো হয়। ফোরাম এ টিয়ারগ্যাস এবং গুলি চালানোর মাধ্যমে কি আমাদের হত্যার ষড়যন্ত্র হচ্ছে কিনা তা নিয়ে আমাদের সন্দেহ হচ্ছে”

শনিবার নওলপাড়ী জেলা সদর দফতরের পারসি এলাকায় দলের বিক্ষোভ মিছিলের সময় পুলিশ কর্মী ও আরজেপি-এন ক্যাডারের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সিপিএন-ইউএমএল পতাকা ও অন্যান্য প্রচার উপকরণের মধ্যে আগুন লাগানোর চেষ্টা করলে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করার জন্য পুলিশ রাবার বুলেট ছুড়লে কমপক্ষে পাঁচজন আহত হন।