মায়ানমারের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ‘শুদ্ধ’ করতে চান ধর্মমন্ত্রী; জাতীয়তাবাদীদের সমালোচনা প্রত্যাখ্যান

মায়ানমারের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ‘শুদ্ধ’ করতে চান ধর্মমন্ত্রী; জাতীয়তাবাদীদের সমালোচনা প্রত্যাখ্যান

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন
ইউ আং কো

পদত্যাগের আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছেন  মিয়ানমারের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী ইউ আং কো।  জাতীয়তাবাদী এবং বৌদ্ধ ভিক্ষুরা তাকে বৌদ্ধধর্মের উপরে ইসলামের পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে পদত্যাগ করতে বলেন। কিন্তু ইউ আং কো উল্টো বৌদ্ধধর্ম নিয়ে উগ্রবাদকে“পরিশুদ্ধ” করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

ধর্ম ও সংস্কৃতিমন্ত্রী মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিবাদকারীদের অভিযোগ ভিত্তিহীন এবং ভবিষ্যতে এই ধরণের মানহানি করা হলে তার বিরুদ্ধে  মামলা করবেন বলে জানান। “[বিক্ষোভকারীরা] আমাকে এই অবস্থানে নিযুক্ত করেনি। জনগণের দ্বারা গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত নেতা আমি। বিক্ষোভকারীদের দাবীতে আমার পদত্যাগের কোন কারণ নেই”

শত শত  জাতীয়তাবাদী নেতা, সন্ন্যাসীসহ হাজার হাজার সমর্থক গত মাসে নেপাইথোর মন্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেছেন। গত রোববার আবারও মায়ানমারের বৃহত্তম দুটি শহর  ইয়াঙ্গুন এবং মান্দলেতে জড়ো হযন এবং অভিযোগ করেন যে  নেপাইথোর বিক্ষোভে তাদের উত্থাপিত দাবির তালিকা সরকার  উপেক্ষা করেছে।

মন্ত্রী বলেন, তিনি বৌদ্ধধর্ম নিয়ে উগ্রতাকে বিশুদ্ধ করবেন এবং এখন যারা বৌদ্ধধর্মের নামে কাজ করার দাবী করে কিন্তু  ধর্মীয় মতবাদ অনুসরণ না করে অন্য কিছু করে তাদের বিরুদ্ধে তাঁর মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা নেওয়ার পরিকল্পনা করছে। উগ্রপন্থী বৌদ্ধ ভিক্ষু উ ওয়ারিথুকে এক বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা দেয়ার পর মন্ত্রির এই ঘোষণা এলো।

সাম্প্রতিক বিক্ষোভের আয়োজকদের একজন ইউ টিন্ট লিউন বলেছে, জাতীয়তাবাদীরা ইয়াঙ্গুন সিটি হলের সামনে বসার পরিকল্পনা করছে। জাতীয়তাবাদীরা মন্ত্রী এবং এনএলডি সরকারকে মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগ করেছে। জানুয়ারিতে মিয়ানমার জুড়ে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বেশ কিছু অনুষ্ঠান অনুমোদনের পর তাদের এই অভিযোগ আরও জোরালো করে। মন্ত্রী বলেন, এই অনুষ্ঠানের অনুমতি প্রাসঙ্গিক টাউন প্রশাসন কর্তৃক দেয়া, তার মন্ত্রণালয় এই অনুমতি প্রদানের সাথে জড়িত নয়।

তিনি আরও বলেন,  জাতীয়তাবাদী প্রতিবাদকারীরা কয়েকটি অনুষ্ঠান অন্যায়ভাবে  বন্ধও করে দেয়।

print
SOURCEদি ইরাবতী
শেয়ার করুন