জনশক্তি জরিপ রিপোর্ট প্রকাশ স্থগিত করলো ভুটান

জনশক্তি জরিপ রিপোর্ট প্রকাশ স্থগিত করলো ভুটান

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন

ভুটানের শ্রম ও জনশক্তি মন্ত্রণালয় ২০১৬-১৭ সালের জনশক্তি জরিপের কাজ সম্পন্ন করলেও এর রিপোর্ট প্রকাশ স্থগিত করা হয়েছে। জরিপে বেশ কিছু ত্রুটি ধরা পড়ায় রিপোর্ট প্রকাশ স্থগিত করা হয় বলে মন্ত্রণালয় থেকে সাংবাদিকদের জানানো হয়েছে।

মন্ত্রণালয় কর্মকর্তারা জানান, চতুর্দশ জনশক্তি জরিপ রিপোর্ট পর্যালোচনার প্রয়োজন রয়েছে। জরিপের কারিগরি কমিটি নমুনা সংগ্রহ, জরিপে ব্যবহার্য উপকরণ, পদ্ধতি, কর্মসংস্থানের সংজ্ঞাসহ অনেক ক্ষেত্রে গুরুতর ত্রুটি দেখা যায়।

জরিপ রিপোর্ট পর্যালোচনার সময় এসব ত্রুটি ধরা পড়ে বলে জানা গেছে।

কর্মসংস্থান ও মানব সম্পদ বিভাগের প্রধান উগইয়েন তেনজিন বলেন, ফলাফল তৈরি করতে গিয়ে এসব সমস্যার কারণে তা আর তৈরি করা যায়নি।

তেনজিন জানান যে ২০১৬-১৭ সালে বেকারত্বের সংখ্যা ভুটানের জনসংখ্যা ও গৃহশুমারি (পিএইচসিবি) ২০১৭ থেকে নেয়া হবে। এটি একটি জাতীয় শুমারি হওয়ায় সেখান থেকে বেকারত্বের সঠিক সংখ্যা পাওয়া যাবে। পিএইচসিবি ৯৯% সঠিক বলে ধরে নেয়া যায়।

ভুটান প্রতিবছর বেকারত্ব জরিপ করে। এর ফলে দেশটির বেকার জনশক্তি সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায়। এর আগে ২০১৫ সালে এই জরিপ করা হয়।

সেখানে সার্বিক বেকারত্ব ২.৫ শতাংশ দেখানো হয়। এতে তরুণদের মধ্যে বেকারত্ব ১০.৭% এবং নারীদের মধ্যে বেকারত্ব ১২.৭% দেখা যায়। সাম্প্রতিক জরিপের ফলাফলে তরুণদের মধ্যে ব্যাপক বেকারত্ব দেখা যায়। একে একটি বড় ধরনের ত্রুটি বলে কর্মকর্তারা মনে করছেন।

প্রকৃত অবস্থা জানতে মন্ত্রণালয় এখন ভুটান লিভিং স্টান্ডার্ড সার্ভে (বিএলএসএস) ২০১৭ ও পিএইচসিবি ২০১৭ রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছে বলে তেনজিন জানান।

SOURCEকুয়েনসেল
শেয়ার করুন