আইন প্রণয়ন ও নির্বাচন তারিখ নির্ধারণের সুপারিশ করেছে নেপাল নির্বাচন কমিশন

আইন প্রণয়ন ও নির্বাচন তারিখ নির্ধারণের সুপারিশ করেছে নেপাল নির্বাচন কমিশন

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন
নেপালের নির্বাচন কমিশন কার্যালয়

নেপালের নির্বাচন কমিশন (ইসি) মঙ্গলবার প্রাদেশিক পরিষদ এবং ফেডারেল সংসদ নির্বাচনের জন্য প্রয়োজনীয় আইন প্রণয়ন করতে সরকারকে লিখিত প্রস্তাব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইয়োধে প্রসাদ যাদবের সভাপতিত্বে ইসি’র একটি সভায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সরকারের কাছে চিঠি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

মঙ্গলবার একটি বিবৃতিতে ইসি জানায়,  নির্বাচন কমিশনের সভায় নির্বাচনের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে লেখার সিদ্ধান্ত হয় যেখানে সমস্ত প্রয়োজনীয়তা বিবেচনা করে নির্বাচনের জন্য তারিখগুলি ঠিক করতে আহ্বান করা হয়েছে। এর আগেও প্রধানমন্ত্রীকে এ বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দেয়া হয়েছিল। ইসি জানায় যে, ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে সরকার কর্তৃক নির্বাচনী এলাকার সীমানা নির্ধারণে কমিশনের প্রতিবেদন প্রদান করতে হবে যাতে করে সংবিধানের ২৮৬ ধারা অনুযায়ী ২১শে জানুয়ারির মধ্যে তিনটি পর্যায়ের নির্বাচন অনুষ্ঠান করা যায়। ৩০ শে জুন  নির্বাচন কমিশন অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবাকে পরামর্শ দেয়। অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে জাতীয় সংসদ নির্বাচন এবং নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভের নির্বাচনের কথাও তাদের সভায় উল্লেখ করা হয়।

২১শে জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে বর্তমান সংসদের মেয়াদ শেষ হলেও নির্বাচন কমিশন ২৩ নভেম্বরের মধ্যে তিনটি নির্বাচন সম্পন্ন করার প্রস্তাব দেয় এ কারণে ইসি মনে করছে শীতকাল শুরু হওয়ার পর পাহাড়ীয অঞ্চলে নির্বাচন অনুষ্ঠান করা অত্যন্ত কঠিন হবে। তবে, সংবিধান অনুযায়ী, প্রাদেশিক ও ফেডারেল সংসদ উভয় নির্বাচনের আগে নির্বাচনী এলাকা নির্ধারণ করার জন্য সরকারকে নির্বাচনী এলাকার সীমিতকরণ কমিশন গঠন করতে হবে। ভোটার তালিকা আইন সংশোধনের মাধ্যমে নতুন ভোটারদের সমন্বয়ের জন্যেও নির্বাচন কমিশন সুপারিশ করেছে কারণ স্থানীয় তৃতীয় পর্যায়ে নির্বাচন হওয়ার আগে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার জন্য খুব বেশী সময় নেই।

print