ভারীবর্ষণে সৃষ্ট দুর্ঘটনায় পাকিস্তানে ২২ জনের মৃত্যু 

ভারীবর্ষণে সৃষ্ট দুর্ঘটনায় পাকিস্তানে ২২ জনের মৃত্যু 

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন

পাকিস্তানে গত দু’দিনের মধ্যে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্ট দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ২২ জন নিহত হয়েছে। আজাদ কাশ্মীর, গিলগিট-বালতিস্তান, পূর্ব বেলুচিস্তান, পাঞ্জাব ও খাইবার পাখতুনখোয়া অঞ্চলে অবিরাম মৌসুমি-বৃষ্টি চলছে। ফয়সালাবাদ, গুজরাট ও গুজরওয়ালায় ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে বেশ কয়েকটি নিচু এলাকা পানিতে ডুবে যায়। ইসলামাবাদে কাচ্চি আবদিতে বৃষ্টির কারণে একটি ঘরে দেওয়াল ভেঙ্গে পড়লে এক শিশুসহ পরিবারের তিন ব্যক্তি মারা যায়। মিয়ানওয়ালিতে বন্যার পানিতে ডুবে তিন শিশু মারা যায়  যা বৃষ্টিপাতের ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা ২২ এ নিয়ে গেছে। এছাড়া চারসাদ্দা অঞ্চলে শক্তিশালী দমকা বাতাসের সাথে বর্ষণের কারণে কয়েক ডজন মাটির ঘর ভেঙ্গে পড়ে।

গিলগিট-বালতিস্তানে ভারী বৃষ্টিপাতে কর্তৃপক্ষ সতর্কতা জারি করে বন্যার জন্য প্রস্তুতি নিতে বলে। গিলগিট-বালতিস্তানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ নদী ও প্রবাহের নিকটবর্তী এলাকার এবং নিচু অঞ্চলে থাকা নাগরিকদের সাবধান থাকার পরামর্শ দিয়েছে। বুধবার ভূমিধসে গিলগিট-স্কার্দু রোডের ছয়টি আলাদা স্থানে ট্রাফিক অবরুদ্ধ হয়ে গেছে।

বেলুচিস্তানে ঝোব, মুসাখেল, লররেই, কোহলু, বরখান, কোহ-ই-সুলেইমান এলাকায় বৃষ্টির কারনে কোহ-ই-সুলেইমান নদীর পানি অধিক প্রবাহিত হয়ে বন্যার আশঙ্কা করা হচ্ছে। লোরাইয়াই-ডিজি খান এবং ঝোব-ডিআইআই জাতীয় মহাসড়কের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টির পানি আটকে আছে। বৃহস্পতিবার আজাদ কাশ্মীরে বৃষ্টি অব্যাহত ছিল; তবে উপত্যকায় নদী প্রবাহ স্বাভাবিক রয়েছে বলা হয়।

SOURCEজিও নিউজ
শেয়ার করুন