আসাম রাজ্যে সরকার চালাচ্ছে আরএসএস, সাবেক মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ

আসাম রাজ্যে সরকার চালাচ্ছে আরএসএস, সাবেক মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৌ অভিযোগ করে বলেছেন, হিন্দুত্ববাদি সংগঠন ‘রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবকসংঘ’ (আরএসএস) এই রাজ্যের সরকার চালাচ্ছে।

রাজ্যের মুখ্যসচিব ভিকে পিপারসেনিয়া গত বৃহস্পতিবার একদল আরএসএস নেতাকে ডেকে নিয়ে রাজ্য সরকারের গৃহীত উদ্যোগ সম্পর্কে জানানোর পর গগৌ ওই অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, দিসপুর (আসামের রাজধানী) সরকার যে আরএসএস চালাচ্ছে তার প্রমাণ এর নেতাদের সঙ্গে মুখ্যসচিবের বৈঠক।

গগৌ বলেন, মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়ালের বাসভবনে বৃহস্পতিবার রাতে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ সম্পর্কে আরএসএস নেতাদের ব্রিফিং করেন পিপারসেনিয়া।

এটা একজন সিনিয়র আমলার চাকরিবিধি’র লঙ্ঘন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
শুক্রবার (১১ আগস্ট) এক সংবাদ সম্মেলনে গগৌ বলেন, এতে প্রমাণ হয় রাজ্য সরকার সনোয়াল চালাচ্ছে না, চালাচ্ছে আরএসএস। সনোয়াল ও তার মন্ত্রীদের নিজস্ব কোন চিন্তা বা পরিকল্পনা নেই। সরকার আরএসএস’র নিয়ন্ত্রণে। রাজ্য সরকারের নেতারা অথর্ব।

গগৌ আরো বলেন যে, পিপারসেনিয়ার চাকরির মেয়াদ ছয় মাস বাড়ানো হয়েছে আরএসএস’র নির্দেশনায়। পিপারসেনিয়া ‘অল ইন্ডিয়া সর্ভিসেস (কনডাক্ট) রুলস’ লঙ্ঘন করেছেন।

সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আমার আমলে হিমন্ত বিশ্বাস শর্মা রাহুল গান্ধির কাছে অভিযোগ করেছিলেন যে আমি নাকি আরএসএস’র প্রতি সহানুভুতিশীল একজন ব্যক্তিকে রাজ্যের মুখ্যসচিব হিসেবে রেখেছি। পিপারসেনিয়া নিজেকে আরএসএস-প্রেমি হিসেবে প্রমাণ দিলেন। মুখ্যসচিব এখন কংগ্রেসকে একটি ব্রিফিং দেবেন বলে আমরা দাবি করবো।

সনোয়ালকে আসামের ইতিহাসে সবচেয়ে দুর্বল মুখ্যমন্ত্রী আখ্যায়িত করেন গগৌ বলেন, নিজে থেকে কথা বলার মতো ব্যক্তিত্ব মুখ্যমন্ত্রীর নেই। তিনি কোন পরিবর্তনের সরকার চালাচ্ছেন না, পতনের সরকার চালাচ্ছেন। তিনি ক্ষমতার জন্য জাতি, মাতি, ভেতি – সব বিসর্জন দিয়েছেন।

গগৌ বলেন, জাতীয় পর্যায়ে বিজেপি ও সংঘ পরিবার ‘ইতিহাস বদলে দিতে চাচ্ছে’, জওয়াহরলাল নেহেরু ও মওলানা আজাদের মতো ব্যক্তিদের নাম মুছে ফেলতে চাচ্ছে। তারা বিচার বিভাগ, নির্বাচন কমিশন ও অন্যান্য স্বশাসিত প্রতিষ্ঠাকে চোখ রাঙ্গাতে চায়। গণতন্ত্র আজ হুমকির মুখে।