পদত্যাগকারী পাক প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী দাঁড়াবেন শূন্য হওয়া আসনে

পদত্যাগকারী পাক প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী দাঁড়াবেন শূন্য হওয়া আসনে

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের শূন্য হওয়া পার্লামেন্টের ১২০ নম্বর আসনে তার স্ত্রী কুলসুম নওয়াজকে মনোনয়ন দিয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন)। আগামী মাসের ১৭ তারিখে লাহোরের এ আসনে উপনির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

পানামা পেপারসকে কেন্দ্র করে পাক সুপ্রিম কোর্ট নওয়াজকে অযোগ্য ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে গত মাসের ১৮ তারিখে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হয়েছিলেন নওয়াজ। একই সাথে তার আসন এন-১২০ শূন্য হয়ে যায়।

পাকিস্তান নির্বাচন কমিশনের লাহোর দফতর শুক্রবার জানিয়েছে, শূন্য আসনে কুলসুমের নওয়াজের পক্ষে মনোনয়ন পত্র জমা দেন আসিফ কিরমানি এবং ক্যাপ্টেন সাফদার। এর আগে ১৯৯৯ সালে পাকিস্তানের সাবেক স্বৈরশাসক জেনারেল পারভেজ মোশাররফের নেতৃত্বাধীন সামরিক অভ্যুত্থানের সময় কারাবন্দি নওয়াজের অনুপস্থিতিতে দলের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন স্ত্রী কুলসুম নওয়াজ।

১৯৯৯ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত তিনি পিএমএল-এনের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। তবে নওয়াজের মেয়ে মরিয়ম এবং স্ত্রী কুলসুম দেশটির কোনো নির্বাচনেই এখন পর্যন্ত অংশ নেননি।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ‘ঐতিহাসিক’ বাড়ি ফেরার শোভাযাত্রার সময়ে এই ঘোষণা এলো। গতকাল শুক্রবার পাঞ্জাব প্রদেশের শহর গুজরাটে শোভাযাত্রায় ভাষণ দেওয়ার সময় নওয়াজ বলেন,  কোটি লোক তাঁকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন। আর অল্প কয়েকজন মিলে তাঁকে অন্যায়ভাবে ক্ষমতাচ্যুত করেছেন। জনগণের ম্যান্ডেট ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে।

এর আগে নওয়াজ তার ছোট ভাই পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফকে প্রধানমন্ত্রী করবেন বলে দলের এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়। তবে তিনি জাতীয় পরিষদের সদস্য না হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার আগে তাকে জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হতে হবে। আর সেজন্য নওয়াজের শূন্য আসনে লড়াই করবেন বলেও জানানো হয়। এতে দুই মাসের মতো সময় লাগতে পারে। এ কারণে সাবেক ক্ষমতাসীন দলের সাবেক মন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসিকে অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়। কিন্তু পরে দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের আপত্তির কারণে শাহবাজ শরিফের নাম প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

এখন কুলসুম নওয়াজকে মনোনয়ন দেওয়ায় পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী তাকেই করা হবে বলে অনেকে ধারণা করছেন। এর আগে নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করা কুলসুম তার স্বামীর ঘাঁটি বলে পরিচিত লাহোরের ওয়ালেদ শহরে জয়ী হওয়ার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। শরিফের জামাতা মোহাম্মদ সাফদার, যিনি নিজেও সংসদ সদস্যও ছিলেন এই নির্বাচনের ব্যাপারে বলছেন  “সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছানুযায়ী, আমরা  এই আসনে একটি বড় সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে জয়ী হব।”

আসন্ন উপনির্বাচন ইমরান খানসহ নওয়াজ বিরোধীদের ওয়াটারলু হবে বলেও ঘোষণা করেন কিরমানি। মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার পর সংবাদ মাধ্যম এবং দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে দেয়া বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। বিশ্বের অন্যতম বিখ্যাত যুদ্ধের ময়দান ওয়াটারলু। ১৮১৫ সালের ১৮ জুনে ঐতিহাসিক ওয়াটারলু যুদ্ধে ডিউক অফ ওয়েলিংটনের কাছে পরাজিত হয়েছিলেন ফরাসি সম্রাট নেপোলিয়ন বোনপার্ট।

এদিকে, একই আসনে আজ ভোরে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ বা পিটিআই’য়ের প্রার্থী ডা. ইয়াসমিন রাশিদ।

শেয়ার করুন