মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্টকে ১৯ মাস জেল

মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্টকে ১৯ মাস জেল

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন
মামুন আব্দুল গাইয়ুম

মালদ্বীপের একটি আদালত দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট মামুন আব্দুল গাইয়ুমকে ১৯ মাস কারাদণ্ড দিয়েছে। সরকার উৎখাতের চেষ্টা ও পুলিশী তদন্তে সহযোগিতা না করার দায়ে তাকে এই দণ্ড দেয়া হয়।

১৯৭৮ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ভারত মহাসাগরীয় দ্বীপ দেশটি শাসন করেন গাইয়ুম। মালদ্বীপের বর্তমান ইয়ামিন সরকারের আমলে এই নিয়ে দুই জন সাবেক প্রেসিডেন্টকে কারাদণ্ড দেয়া হলো। মামুনের সৎভাই বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইয়ামিন।

বুধবার আদালত মামুনকে এক বছর সাত মাস ছয় দিন কারাদণ্ড দেয় তার মোবাইল ফোন তদন্তকারীদের কাছে হস্তান্তরে অস্বীকৃতি জানানোর জন্য। গাইয়ুমের সঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের আরো দুই বিচারপতি আব্দুল্লাহ সাইদ ও আলি হামেদকে গ্রেফতার করা হয়। একই ধরনের অপরাধের জন্য বুধবার তাদেরকেও এই দণ্ড দেয়া হয়।

এর আগে নিম্ন আদালতের সিদ্ধান্ত প্রভাবিত করার চেষ্টার দায়ে সাইদ ও হামেদকে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

ব্যয়বহুল টুরিস্ট রিসর্টের জন্য খ্যাত মালদ্বীপে গাইয়ুমের ৩০ বছরের শাসন অবসানের পর ২০০৮ সালে বহুদলীয় গণতন্ত্রের সূচনা হয়। তবে ইয়ামিন ক্ষমতায় আসেন ২০১৩ সালে। তার আমলে অনেক গণতান্ত্রিক অর্জন বিনষ্ট হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

২০০৮ সালে প্রথম গণতান্ত্রিক নির্বাচনে বিজয়ী প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদকে এর আগে ১৩ বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়। বর্তমানে তিনি ব্রিটেনে নির্বাসিত জীবন কাটাচ্ছেন।

ইয়ামিনের শাসনামলে তার এক সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আহমেদ আদিব, দুই প্রতিরক্ষা মন্ত্রী, এক প্রসিকিউটর জেনারেল এবং বহু সংখ্যক বিরোধী দলীয় এমপি’কে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ বিচারে নিরপেক্ষতা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা রয়েছে।

print
SOURCEএপি
শেয়ার করুন