সিপিইসিতে ‘গুরুত্বপূর্ণ উদ্বেগগুলো’ আমলে নেয়া হয়নি, জাতিসংঘে ভারতের অভিযোগ

সিপিইসিতে ‘গুরুত্বপূর্ণ উদ্বেগগুলো’ আমলে নেয়া হয়নি, জাতিসংঘে ভারতের অভিযোগ

এসএএম স্টাফ,
শেয়ার করুন

চীনের ‘বেল্ট এন্ড রোড ইনিশিয়েটিভ’ (বিআরআই) নিয়ে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের ৩৯তম অধিবেশনে উদ্বেগ প্রকাশ করেছ ভারত। দেশটি বলেছে সার্বভৌমত্ব ও ভৌগলিক অখণ্ডতার মতো নয়া দিল্লি’র গুরুত্বপূর্ণ উদ্বেগগুলো ‘চায়না পাকিস্তান ইকনমিক করিডোর’ (সিপিইসি) প্রকল্পে আমলে নেয়া হয়নি।

ভারত ভৌত কানেকটিভিটি জোরদারে আন্তর্জাতিক মহলের আকাঙ্ক্ষা লালন এবং এটা সবার জন্য সমান ও ভারসাম্যপূর্ণ অর্থনৈতিক সুবিধা বয়ে আনবে বলে বিশ্বাস করে বলে দাবি করলেও জাতিসংঘের দেশটির উপ-রাষ্ট্রদূত বীরেন্দ্র পাল বলেন, বিআরআই’র ফ্লাগশিপ প্রকল্প হিসেবে অভিহিত সিপিইসি’র ব্যাপারে ভারতের অবস্থান সম্পর্কে আন্তর্জাতিক মহলের জানা আছে। সার্বভৌমত্ব ও ভৌগলিক অখণ্ডতার মতো গুরুত্বপূর্ণ উদ্বেগগুলো উপেক্ষা করা হয়েছে এমন কোন প্রকল্পই কোন দেশ মেনে নিতে পারে না।

ভারত উন্নয়নের অধিকার বাস্তবায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

উন্নয়নের অধিকার বিষয়ক ওয়ার্কিং গ্রুপের রিপোর্ট সম্পর্কে এক বিবৃতিতে পাল বলেন যে, বিশ্বের জনগণের জন্য উন্নয়নের অধিকার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার বিষয়টি ভারত অনুধাবন করে। কিন্তু দু:খজনক হলো জাতিসংঘ এই ঘোষণা গ্রহণ করার পর তিন দশক পার হলেও বিষয়টি এখনো সুদূর পরাহত হিসেবেই থেকে গেছে।

তিনি আরো উল্লেখ করেন যে, ওয়ার্কিং গ্রুপের অগ্রগতি কেবল তখনই সম্ভব যদি অংশগ্রহণকারী দেশগুলো রেজাল্ট-অরিয়েন্টেড মনোভব নিয়ে একটি অভিন্ন ক্ষেত্র খুঁজে পেতে প্রয়োজনীয় রাজনৈতিক সদিচ্ছা দেখায়।

ভারতীয় দুত আরো বলেন, আমরা স্বীকার করছি যে উন্নয়নের প্রক্রিয়াটি জাতীয়ভাবে এবং জাতীয় প্রয়োজন ও অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে হতে হবে। এবং সমঅর্থনৈতিক সম্পর্ক এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে একটি অনুকূল পরিবেশও এর পরিপূরক হতে হবে।

print
SOURCEএএনআই
শেয়ার করুন